কাঁচা আমের ২ রকম শরবত

লোভনীয় একটি ফল কাঁচা আম। এই গরমে প্রান জুড়াতে এক গ্লাস কাঁচা আমের জুস আপনার তৃষ্ণা মেটাবে আর সেই সাথে পাবেন প্রশান্তি। এখানে ২ রকম ভাবে কাঁচা আমের শরবত তৈরির সহজ প্রনালি দেওয়া হল।

কাঁচা আমের শরবত

ক্লান্তি ভুলে সজীবতা ফিরে পাবেন এক গ্লাস কাঁচা আমের শরবত পান করে। বিশ্বাস না হলে নিচের প্রনালি অনুযায়ী প্রস্তুত করে দেখুন।

উপকরণ
  • কাঁচা আম – ২টা
  • চিনি – ৩ চামচ (স্বাদ মত)
  • কাঁচা মরিচ – ২ টি
  • বিট লবণ- একচিমটি
  • গোল মরিচের গুঁড়া – সামান্য
  • লবণ – পরিমানমত
  • বরফ কুচি – পরিমানমত
প্রনালি
  • প্রথমে পরিষ্কার আম খোসা ছাড়িয়ে আটি ফেলে টুকরো করে কেটে নিন।
  • এরপর একটি ব্লেন্ডারে আম, চিনি, কাঁচামরিচ, বিট লবণ, গোল মরিচের গুঁড়া ও লবণ একসঙ্গে মিলিয়ে ২ মিনিট ভাল করে ব্লেন্ড করে নিন।
  • (বরফ কুচি দিয়েও ব্লেন্ড করতে পারেন।)
  • এবার গ্লাসে ঢেলে বরফ কুচি বা লেবুর পিস দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন দারুণ সুস্বাদু কাঁচা আমের শরবত।

পোড়া আমের ঠাণ্ডা শরবত

একটু ভিন্ন ভাবে কাঁচা আম পুড়িয়ে এই শরবত বানানো হয়ে থাকে। এই শরবত এতটাই টেস্টি যে একটু খেলেই বারবার খেতে মন চাইবে।

উপকরণ
  • কাঁচা আম – ২ টি
  • সরষে তেল – ১চা চামচ
  • চিনি – ৪ চামচ (স্বাদ মত)
  • কাঁচা মরিচ – ২ টি
  • বিট লবণ- একচিমটি
  • জিরা গুঁড়া – সামান্য
  • লবন – পরিমানমত
  • বরফকুচি – পরিমানমত
প্রনালি
  • প্রথমে আমের বোঁটা ছাড়িয়ে ১০ মিনিট পানিতে ভিজিয়ে রাখুন যেন আমের কস বেরিয়ে যায়।
  • তারপর আমের গায়ে সরষের তেল মাখিয়ে নিতে হবে। তেল মাখানোর ফলে পরে আমের খোসাটা ছাড়াতে সহজ হবে।
  • এবার আমগুলোকে খোসা সহ আগুনে পুড়িয়ে নিন। তারপর ঠাণ্ডা হলে আমের খোসা ছাড়িয়ে নিন।
  • আমের আঁটি গুলো ফেলে ভিতরের নরম আম গুলো চটকে নিন।
  • এবার একটি বাটিতে সব উপকরন নিয়ে আমের সাথে সব ভালো করে মিশিয়ে কিছুক্ষণ রাখুন। সব এক সাথে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করুন। 
  • বরফকুচি দিয়ে ব্লেন্ড করতে পারেন বা গ্লাসে ঢেলে উপরে বরফকুচি ছড়িয়ে দিতে পারেন। আপনার ইচ্ছা মতো পরিবেশন করুন।

Leave a Reply