গায়ে গহনা

গহনা নারীর সৌন্দর্যের প্রতীক হিসেবে বিবেচিত হয়। সৌন্দর্য প্রকাশের জন্য নারীরা মূলত স্বর্ণ, রৌপ্য, তামা এবং হীরা দিয়ে তৈরি গহনা ব্যবহার করেন। গহনা অনেক ক্ষেত্রেই সম্পদ, শক্তি এবং সমৃদ্ধির সঙ্গে সম্পর্কিত।

গহনা শুধু আভিজাত্যের প্রতীকই নয়, গহনা সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে অনেকটাই। উপাদানের রকমফেরের জন্য গহনায় আসে ভিন্নতা ও দামে তারতম্য। উপলক্ষ বা অনুষ্ঠানভেদে ভিন্ন ধরনের অলঙ্কার পরার মাধ্যমে নারীরা তাদের ব্যক্তিত্ব ফুটিয়ে তোলে।

অলঙ্কার নিয়ে এক সময় পরিবারের বড়দের অনেক ধকল পোহাতে হতো। ডিজাইন মনমতো হলো কি-না, সময়মতো পাওয়া গেল কি-না। এসব নিয়ে চলত ঝক্কি-ঝামেলা। গহনার ডিজাইন ও উপাদানের রকমফেরও কম ছিল তখন। আজকাল আর গহনা বানানোর কারিগরের কাছে যেতে হয় না। অনলাইনেই মিলছে এই হয়রানির সমাধান।

কারুকর্ম এমনই এক ভরসার জায়গা জুয়েলারি কেনা বা অর্ডার দিয়ে বানিয়ে নেওয়ার জন্য। কথা হচ্ছিল কারুকর্মের উদ্যোক্তাদের সঙ্গে।

২০১৭ সালে অনেকটা শখের বশেই কারুকর্মের জন্ম। শুরুটা ক্র্যাফট সেকশন দিয়ে হলেও কারুকর্ম হ্যান্ডমেড গর্জিয়াস ব্রাইডাল, সেমি ব্রাইডাল, পার্টি জুয়েলারি খুব কম সময়ের মধ্যেই সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করে এবং দ্রুত অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ে।

কারুকর্ম বিদেশি জুয়েলারি ইমপোর্ট করার পাশাপাশি নিজস্ব ডিজাইন, হরেক রকম কাস্টমাইজেশন ও ইন্সপায়ারড দেশি ডিজাইন মেকিংয়ে গুরুত্ব দেয়। শুরু থেকেই দেশীয় কারিগরদের এই দক্ষতা সবার সামনে তুলে ধরা, তাদের কাজের সঠিক মূল্যায়ন এবং তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা কারুকর্মের একটা অন্যতম বড় উদ্দেশ্য।

এই অনলাইন গহনা স্টোর বিয়ের গহনার সঙ্গে বিভিন্ন ধরনের গহনা তৈরি ও বিক্রি করে থাকে। বিভিন্ন উপলক্ষ অনুযায়ী মানানসই গহনা বেছে নিতে পারেন ক্রেতারা সহজেই। শাড়ি বা সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে পরা যায় এসব গহনা। গহনার ডিজাইন ক্রেতার চাহিদার ওপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হয়। আমাদের দেশের মেয়েরা পাকিস্তানি বা ইন্ডিয়ান ফ্যাশন দিয়ে প্রভাবিত হয়। গহনায় সাউথ ইন্ডিয়ান প্রভাব একটু বেশি। ঘরে বসে অর্ডার করেই পাওয়া যাচ্ছে এসব গহনা।

গহনার উপাদানে ভিন্নতা চোখে পড়ার মতো। কুন্দন, রুপা, বিভিন্ন মেটালের জুয়েলারি দাপটের সঙ্গে বাজারে অবস্থান করছে। অনেকেই বিভিন্ন সময় নতুন নতুন ডিজাইন পরতে পছন্দ করেন।

সে ক্ষেত্রে গোল্ড, ডায়মন্ড বা অন্যান্য দামি ধাতু খুব বেশি সাধ্যের বাইরে চলে যায়। অনুষ্ঠানভেদে ভিন্ন ধরনের অলঙ্কার পরার সুযোগ তৈরি হয়েছে এখন। আমাদের দেশের মেয়েরা নানান ধরনের গহনা পরছে আজকাল। কেউ পছন্দ করেন ভারী গর্জিয়াস গহনা। কেউ করেন ছিমছাম।মেটালের সঙ্গে পার্ল, কুন্দন, মিনা করা নেকপিস, সীতা পাটি, কানের দুল, টিকলি, নথ, চোকার, কঙ্কাবতী, বাজু, নূপুর ইত্যাদি আছে কারুকর্মের সংগ্রহে।



আরো পড়ুন



Leave a Reply